শিক্ষাসফর ২৯ জানুয়ারি

No photo description available.

শিক্ষাসফর জ্ঞানার্জনে প্রভাববিস্তারকারী এক প্রচীন পদ্ধতি। হযরত আদম থেকে শুরু করে শেষ নবি পর্যন্ত সবাই শিক্ষাসফর করেছেন। শিক্ষাসফর করেছেন সকল আহলে ইলম। খতিব বাগদাদি তাঁদের অন্যতম। একা একা শিক্ষাসফর প্রাচীনযুগেও ছিল এখনো আছে। তবে সম্মিলিতভাবে শিক্ষাসফর প্রাচীনযুগেও কম এখনো কম। সম্মিলিতভাবে শিক্ষাসফরের গুরুত্ব যে দৃষ্টিকোণে গুরুত্বের এই সেই দৃষ্টিকোণেই উস্তায-ছাত্র ও অভিভাবক নিয়ে শিক্ষাসফর আরো বেশি গুরুত্বের। দেশের হাতেগোনা কয়েকটি সাধারণ কারিকুলামের প্রতিষ্ঠান এ ধরনের শিক্ষাসফরে অভ্যস্ত হলেও কওমিধারার মাদারিসগুলোর মধ্যে জামেয়া ইসলামিয়া ফরিদাবাদ সিলেটই প্রথম। প্রত্যেক বছরই সে তার এ শিক্ষাসফর চলমান রেখে আসছে। এতে ছাত্রদের আনন্দ-বিনোদনের পাশাপাশি বিভিন্ন অভিজ্ঞতা অর্জন হয়। প্রকৃতিপরিচিতির পাশাপাশি জানাশুনা হয় অনেক কিছু।

সেই ধারাবাহিকতায় ২০১৯ সালের শিক্ষাসফর ২৯ জানুয়ারি। সম্মানিত অভিভাবকরাও যেতে পারবেন আপনার সন্তানের সাথে। আগ্রহীরা দ্রুত যোগাযোগ করুন জামেয়া অফিসে।

এবারের স্পট: হিফজ তাকমিল: চট্টগ্রম। হিফজ সবক ও নাযেরাহ বিভাগ: জাফলং। কিতাব বিভাগ: বড়লেখা মাধবকুণ্ডসহ বিভিন্ন ঐতিহাসিক স্থান।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *