আবারো বাংলাদেশের ক্ষুদে হাফেজ জাকারিয়া প্রতিযোগিতার মাঠে। এপ্রিল মাসের প্রথম সপ্তাহে কুয়েত আন্তর্জাতিক হিফজুল কোরআন প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করবেন বিশ্বজয়ী এই হাফেজ।
১৩ বছর বয়সী এই হাফেজ ইসলামিক ফাউন্ডেশনের বাছাই পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে কুয়েত যাওয়ার টিকিট লাভ করে।
এর আগে জাকারিয়া ২০১৫ সালে সংযুক্ত আরব আমিরাতের বাণিজ্যিক শহর দুবাইয়ে ১৯তম আন্তর্জাতিক কোরআন প্রতিযোগিতায় ৮০টি দেশের প্রতিযোগীকে হারিয়ে ৩য় ও সুর ক্যাটাগরিতে প্রথম স্থান লাভ করেন।
হাফেজ জাকারিয়া হাফেজ মাওলানা ফয়জুল্লাহ ও মোসাম্ম‍ৎ জাহানারার একমাত্র ছেলে। তার গ্রামের বাড়ি মানিকগঞ্জ জেলার হরিরামপুর থানার চর ইসলামপুরে এবং তার দাদার বাড়ী ভোলার চরফ্যাশন পৌরসভায়।
হাফেজ জাকারিয়া ২০১১ সালে কাতারে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক কুরআন প্রতিযোগিতায় ৪র্থ, ২০১৩ সালে জর্ডানের রাজধানী আম্মানে অনুষ্ঠিত প্রতিযোগতায় ৩য়, ২০১৪ সালে মিসরের কায়রোতে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক কোরআন প্রতিযোগিতার ১ম স্থান লাভ করেন।
জাকারিয়া ৭ বছর বয়স থেকে পবিত্র কোরআনে কারিম হেফজ করা শুরু করেন। বর্তমানে যাত্রাবাড়ীর বিবির বাগিচাস্থ আলহাজ হাফেজ ক্বারী নাজমুল হাসান কর্তৃক পরিচালিত তাহফিজুল কোরআন ওয়াস সুন্নাহ মাদ্রাসায় পড়াশোনা করছেন।
ক্ষুদে এই হাফেজ তার সুললিত কণ্ঠ এবং সুস্পষ্ট কুরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে বাংলাদেশের নাম বিশ্ব দরবারে এবারও উজ্জ্বল করবেন বলে মনে করছেন তার শিক্ষকরা।