আমার শিক্ষক

বিলাল আহমদ ইমরান শিক্ষকতা। এক মহান ব্রত। মহান এ জন্যেই, শিক্ষক একান্ত নিষ্ঠা ও প্রাণান্ত শ্রমে যে কাজ করে চলেন দিনের পর দিন, বিরামবিহীন—সে তাঁর কাজ নয়; নিখিল মানুষের। শিক্ষক কখনো ঘুমিয়ে পড়েন না—সতত জেগে থাকেন, কেবল জাগাতে থাকেন। সত্তার জমিন চাষ করে স্বপ্নের বীজ বুনেন। সুন্দরের স্বপ্ন। জীবনের স্বপ্ন। অন্ধকারের বন্ধ দুয়ারে ব্যাকুল কর […]

ফুল গিয়াছে নিশায় ঝরিয়া, সে ফুল নাহি ফুটিবে আর…

  নূরুদ্দীন ছোটদেশি: মহান রাব্বুল আলামীনের নৈকট্য ও সান্নিধ্য লাভের লক্ষ্যে যুগ যুগ কঠোর সাধনা ও আত্মত্যাগের মাধ্যমে যে সকল মহাপুরুষ পুষ্পের মতো সৌরভ ছড়িয়ে যান পৃথিবীর মাঝে যা নিঃশেষ হয় না কখনো, রেখে যান মহৎ আদর্শ ও অমর কীর্তি। তাঁরা আসলে মরেন না, স্মৃতির আয়নায় তাঁরা হয়ে থাকেন চিরভাস্বর ও অমর। তাঁদেরই মধ্যে নির্ঘণ্টে সোনার […]

তাঁর সান্নিধ্যে ক’টি বছর

  আবদুল কারীম: ১৪১৪ হিজরি। শিক্ষা জীবনের সর্বোচ্চ ক্লাসের ফাইন্যাল পরীক্ষার মাসাধিকাল দেরি। দাওরায়ে হাদিসের মসনদে শ্রদ্ধাস্পদ উস্তাদ শায়খ মরহুম আবদুল হাই রাহ. আগমন করলেন, বসে বললেন, তাঁর গ্রাম-সুপাতলা মসজিদের জন্য একজন হুঁশিয়ার ইমামের প্রয়োজন। আল্লাহর শুকরিয়া ক্লাসের সবাই এক বাক্যে আমি নগণ্যের নাম প্রস্তাব করল। তখন আমি ক্লাসে ছিলাম না, বিধায় আমার মতামত নিতে পারেন […]

প্রার্থনারত অবস্থায় আবদুল হাই সাহেবকে যেমন দেখেছি

ইসমাঈল আহমদ: ছোট বেলা থেকে আমি হুজুর রাহ. কে খুব কাছ থেকে দেখার সুযোগ পেয়েছি। কারণ তিনি ছাত্রজীবন থেকে তাঁর মৃত্যুপূর্ব পর্যন্ত আমাদের জামে মসজিদের ইমাম ও খতিব ছিলেন। ইমাম সাহেব হুজুর নামে ছিল তাঁর পরিচিতি। তদানীন্তন মসজিদের মুতাওয়াল্লি ছিলেন আমার দাদা মরহুম মাওলানা বশীর উদ্দিন রাহ.। তার তিরোধানের পর মুতাওয়াল্লী ছিলেন আমার পিতা। সে জন্য […]

শায়খ আবদুল হাই রাহ.কে যেমন দেখেছি

মাহমুদ হাসান: ২৬ ফেব্র“য়ারি ২০১০ ইংরেজি, মোতবিক ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৩১ হিজরি, শুক্রবার, বেলা ১.১০ মিনিট। বাংলার আকাশ থেকে অস্তমিত হয়ে গেল এক উজ্জ্বল নক্ষত্র। আশা ছিল বাংলার মানুষকে আলো দেবে আরো কয়েকদিন। কিন্তু আল্লাহর কি মহিমা! সে আশা দুরাাশায় পর্যবসিত হল। সকল আশা-আকাক্সক্ষা নিরাশায় বদলে গেল। যখন খবর পেলাম, আলোকিত সেই তারকাটি ঝড়ে পড়েছে, তখন […]

শায়খ আবদুল হাই রাহ. যেভাবে মাহে রামাযান অতিবাহিত করতেন

  আতীকুর রহমান: শায়খ আবদুল হাই রাহ. ছিলেন আকাবিরের বাস্তব নমুনা। যিনি স্বীয় জীবনে আকাবিরের পূর্ণ অনুসারী ছিলেন। তাই আকাবিরের মতই পবিত্র রামাযানের খুবই ইহতেমাম করতেন এবং ইত্তেবায়ে সুন্নাতের পূর্ণ চেষ্টা করতেন। হাদিসে এসেছে, “যে ব্যক্তি আল্লাহ তায়ালার ওপর ঈমান রেখে সওয়াবের নিয়তে রোযা, এবাদতের মাধ্যমে রাত্রিসমূহকে যিন্দা রাখে, তার অতীতের সব গোনাহ মাফ হয়ে যায়।” […]

আবদুল হাই ছিলেন যামানার এক মহান সাধক

শায়খ ফারুক আহমদ: সকল স্তুতি ও প্রশংসা সেই মহান সত্ত্বার যিনি এ বিশ্বজাহান সৃষ্টি করত যুগে যুগে অসংখ্য নবী-রাসূল প্রেরণ করে তাঁর যমিনে তাঁরই মনোনীত ধর্ম ইসলাম প্রতিষ্ঠা করেছেন। এর পর সাহাবা, তাবেয়ী, তব-ই তাবেয়ী, আইম্মায়ে মুজতাহিদীন ও হক্কানি উলামায়ে কেরামের ওপর, যাদের মাধ্যমে দ্বীনে হক এর পরম্পরা আমাদের পর্যন্ত পৌঁছেছে, তাঁদের প্রতি সালাত ও সালাম […]

শায়খ আবদুল হাই রাহ.’র সংসারজীবনের খণ্ডচিত্র

মাহমুদ হাসান বিন আবদুল হাই রাহ. : যুগে যুগে এ নশ্বর পৃথিবীতে যাঁরা দ্বীনের খেদমত আঞ্জাম দিয়ে গেছেন, তাঁদের প্রথম সারির লোক ছিলেন হযরাত আম্বিয়ায়ে কেরাম আলাইহিমুস সালাম। তাঁদের মধ্যে সর্বশ্রেষ্ঠ ছিলেন শেষ নবী হযরত মুহাম্মদ সা.। যাঁর হাতে গড়ে ওঠেছিলেন হযরাত সাহাবায়ে কেরাম। দ্বিতীয় ও তৃতীয় সারিতে ছিলেন তাবেয়ীন ও তাবয়ে তাবিয়ীন। এর পর আইম্মায়ে […]

শায়খ আবদুল হাই রাহ., ত্যাগ ও কুরবানির প্রদীপ্ত নমুনা

নুরুল ইসলাম আহমদাবাদি: উলামায়ে রব্বানি ও আহলুল্লাহদের জীবন পর্যালোচনা করলে দেখা যায়, তাদের কেউ কেউ সমসাময়িক যুগে মশহুর বা খ্যাতিমান। সর্বস্তরের মানুষের নিকট তাদের পরিচিতি, গ্রহণযোগ্যতা ও ভক্তি বিরাজমান। তাঁরা মশহুর বা পরিচিত হওয়ার জন্য আদৌ ইচ্ছুক না থাকা সত্ত্বেও আল্লাহ তায়াল মানুষের মধ্যে তাদের পরিচিতি, ভক্তি, শ্রদ্ধা, মহব্বত ও গ্রহণযোগ্যতা সৃষ্টি করে দেন। এতে অগণিত […]

لا تحزن হতাশ হবে না: অসাধারণ একটি বই

হতাশ হবে না আমাদের চারপাশে নানান সমস্যা যা আমাদের খুব দ্রুত হতাশ করে ফেলে। আর এই হতাশা শয়তানকে মানুষের উপর বিজয়ী হতে সাহায্য করে। কিন্তু কীভাবে হতাশামুক্ত হওয়া যায়? এ বিষয়ে আরবের বিশিষ্ট শায়খ ড. আইয আল করনি একটি বই লিখেছেন। নাম ‌লা-তাহযান। বিশ্বব্যাপী প্রবল সাড়া জাগানো ও সর্বাধিক প্রচলিত বই এটি। ইতোমধ্যে শুধু আরবিভাষায় প্রকাশিত […]

জাতীয় ইমাম সমিতির বিভাগীয় হিফজ প্রতিযোগিতার বাছাইপর্বে সেরা ২৫জনের ৮জন জামেয়া ইসলামিয়া ফরিদাবাদ সিলেটের

জাতীয় ইমাম সমিতি আয়োজিত সিলেট বিভাগীয় হিফজুল কুরআন প্রতিযোগিতার বাছাইপর্ব ১৬ই ডিসেম্বর মঙ্গলবার সিলেটের মধুবন মার্কেটস্থ অফিসে অনুষ্ঠিত হয়। সিলেট বিভাগের দুই শতাধিক নতুন হাফেজদের মাঝে বাছাই করা হয় ২৫জনকে। সেরা ২৫জনের ৮জনই সিলেটের ঐতিহ্যবাহী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জামেয়া ইসলামিয়া ফরিদাবাদ সিলেটের। আগামী ২৫-২৬ ডিসেম্বর  সরকারি আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে প্রতিযোগিতার ফাইন্যাল পর্ব অনুষ্ঠিত হবে। সেই সাথে উক্ত […]

জামেয়া ইসলামিয়া ফরিদাবাদ সিলেট এর সংক্ষিপ্ত পরিচিতি

প্রতিষ্ঠানের নাম: জামেয়া ইসলামিয়া ফরিদাবাদ সিলেট প্রতিষ্ঠাকাল: ২০০৯ সালের ৭ই আগস্ট। অবস্থান: ফরিদাবাদ আবাসিক এলাকা, এয়ারপোর্ট, সিলেট, বাংলাদেশ। লক্ষ্য: জামেয়ার রয়েছে সুদূরপ্রসারী পরিকল্পনা। বাস্তবভিত্তিক গবেষণা ও সঠিক পাঠদানের মাধ্যমে এমন একদল যুগসচেতন হাফিয ও আলিম গড়ে তোলাই এর মূল লক্ষ্য; যারা চলমান শতাব্দির যেকোনো চ্যালেঞ্জে জাতিকে সঠিক নেতৃত্ব ও দিঙ্নির্দেশনা দিতে সক্ষম হবে। মানুষ পাবে […]